1. asmaakter99987@gmail.com : Asma Akter : Asma Akter
  2. jannatulsifa9486@gmail.com : BD NEWS 99 :
  3. ohanafariah8@gmail.com : Fariah Jalal Ohana : Fariah Jalal Ohana
  4. help.geniusplug@gmail.com : Geniusplug Technology : Geniusplug Technology
  5. jannatulparash123@yahoo.com : Jannat Parash : Jannat Parash
  6. jannatulsifa236@gmail.com : jannatul sifa : jannatul sifa
  7. kabirtanzim2@gmail.com : Kabir Mahmud : Kabir Mahmud
  8. jakia0702@gmail.com : Kuashabrita Usha :
  9. nilmubdiol@gmail.com : Md Mubdiul Islam : Md Mubdiul Islam
  10. mituakter54402@gmail.com : Mehreen Mitu :
  11. engr.romansarkar@gmail.com : romanbd :
  12. afrinsabrin2019@gmail.com : SABRIN AFRIN :
  13. jannatul.sifa@yahoo.com : Shahjadi Mukti :
  14. soyboliny@gmail.com : Shifat Afrin Semu : Shifat Afrin Semu
  15. suchonaislam23@gmail.com : Shuchona Islam :
  16. ummayjahan3@gmail.com : Tanzina Mim : Tazina MIm
বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন

করোনা পরবর্তী শিক্ষা ব্যবস্থা কেমন হতে পারে ও করনীয়

  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ১০ মে, ২০২০
  • ৩২ বার দেখা হয়েছে

করোনা পরবর্তী শিক্ষা ব্যবস্থায় যে পরিবর্তন আসবে তা অনুমেয় । বর্তমানে  বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাস যে প্রকোপ ছড়িয়েছে তা জনমনের প্রশান্তি নষ্ট করে দিয়েছে। এমতাবস্থায় আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো দীর্ঘ সময় সময় যাবত বন্ধ আছে।এবং সরকারি ঘোষণা মতে আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তা বন্ধ থাকবে।কিন্তু এই দীর্ঘ ছুটির পর তা শিক্ষার্থীদের মধ্যে কেমন প্রভাব ফেলবে তা চিন্তার বিষয়।আমাদের দেশের ছাত্রসংখ্যা পৃথিবীর কয়েকটা দেশের জনসংখ্যার থেকে কম নয়।এ জাতিকে যোগ্য করে তুলতে শিক্ষাই অন্যতম হাতিয়ার।এক বছরে আমাদের দেশের  ৩৫ হাজার কোটি টাকা বিদেশে  যাচ্ছে যোগ্য কর্মীর অভাবে।

যা দিয়ে ১৫ লক্ষ বেকারের মাসিক ২০ হাজার টাকা বেতনের চাকরি দেয়া যায়।তা থেকেই বোঝা যায়,শিক্ষার গুরুত্ব কতটুকু।আমাদের গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার সেই বিষয়ে সচেতন হলেও আমাদের সিস্টেম এ যথেষ্ট ঘাটতি আছে।ইতিমধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলোতে যে অনলাইনভিত্তিক ক্লাস শুরু হয়েছে,তাতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা কিছুটা লাভবান হলেও প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা লাভবান হচ্ছে না তেমন।এর অন্যতম কারণ আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা এই ব্যাবস্থার সাথে পরিচিত নয়।আমাদের মতো দেশে অনেক আগে থেকেই একটি শিক্ষা টিভি চ্যানেল এর প্রয়োজনীয়তা ছিল।শিক্ষাবিদরা বিভিন্ন সময় শিক্ষা টিভি চ্যানেল প্রতিষ্ঠার দাবি তুললেও তা কার্যকর করেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।তবে এক্ষেত্রে এখন দুর্বল দিকগুলো চিহ্নিত করে তা সমাধানের পদক্ষেপ নিতে হবে।লকডাউন উপস্থাপনা তৈরির জন্য পর্যাপ্ত সময় দেওয়া প্রয়োজন। যাতে তা ২০ থেকে ২৫ লাখ ছাত্রের মনোযোগ ধরে রাখতে পারে।

অপরদিকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশও অর্থনীতিতে এক বিরাট ধাক্কার সম্মুখীন হচ্ছে। আশংকা করা যাচ্ছে শিক্ষার্থীদের একটি বড় অংশ শিক্ষার ধারাবাহিকতা হারাতে পারে।শিক্ষার ধারাবাহিকতা রক্ষার কৌশল নির্ধারণ করা জরুরি। আর তার জন্য দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করা প্রয়োজন। নিয়মিত পাঠদান বন্ধ থাকায় নির্দিষ্ট  সময়ে সিলেবাস শেষ করার কোন সুযোগ নেই।এসব কারণে পেছাতে হবে শিক্ষাবর্ষের সকল পরীক্ষা।এস.এস.সি পরীক্ষার ফলাফল বিলম্বিত হলে বিঘ্নিত হবে কলেজে ভর্তি।কলেজে ভর্তি দেরিতে হলে এইচ.এস.সি পরীক্ষা পিছিয়ে যাবে।আর এইচ.এস.সি পরীক্ষা পেছালে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি বিলম্বিত হবে। উচ্চ শিক্ষা স্তরে সৃষ্টি হবে সেশন জোটের।

এসব থেকে কিছুটা রক্ষা পেতে হলে।১) করোনা পরবর্তীতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান  খুললে শিক্ষার্থীদের সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করতে হবে।২) বার্ষিক ছুটিগুলোর সমন্বয় সাধন করে তা কাজে লাগাতে হবে।★চাপ সৃষ্টি না করে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস ও নির্দিষ্ট সময়ে শিক্ষাবর্ষ শেষ করতে হবে।৩) বোর্ড পরীক্ষাগুলোতে সময়ের কৌশল পরিবর্তন করতে হবে। এক্ষেত্রে বন্ধের দিনগুলোতে পরীক্ষা নেওয়া যেতে পারে।৪) কম গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো যেমন,ড্রয়িং,চারুকলা, ইংরেজী এবং বাংলার অতিরিক্ত বইগুলো তথা বিষয় কমিয়ে আনতে হবে।৫) সপ্তাহে ৬ দিন কর্মঘণ্টা নির্ধারণ করা যেতে পারে।এক্ষেত্রে একদিনে অনেক চাপ একসাথে পড়বে না।আমেরিকা এবছরের জন্য কয়েকটি দেশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা করেছে। তাদের কৌশল অবলম্বন করে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়া যেতে পারে। তা ছাড়াও ১৯৭০ সালে প্রলয়ঙ্কারী বন্যা ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী গৃহীত পদক্ষেও ও অভিজ্ঞতা গ্রহণ করা যেতে পারে।

সোশ্যাল মিডিয়া পোষ্টটি শেয়ার করুন।

এই ক্যাটাগরির আরও পোষ্ট
© All rights reserved © 2020 bdnews99.com