1. asmaakter99987@gmail.com : Asma Akter : Asma Akter
  2. jannatulsifa9486@gmail.com : BD NEWS 99 :
  3. ohanafariah8@gmail.com : Fariah Jalal Ohana : Fariah Jalal Ohana
  4. help.geniusplug@gmail.com : Geniusplug Technology : Geniusplug Technology
  5. jannatulparash123@yahoo.com : Jannat Parash : Jannat Parash
  6. jannatulsifa236@gmail.com : jannatul sifa : jannatul sifa
  7. kabirtanzim2@gmail.com : Kabir Mahmud : Kabir Mahmud
  8. jakia0702@gmail.com : Kuashabrita Usha :
  9. nilmubdiol@gmail.com : Md Mubdiul Islam : Md Mubdiul Islam
  10. mituakter54402@gmail.com : Mehreen Mitu :
  11. engr.romansarkar@gmail.com : romanbd :
  12. afrinsabrin2019@gmail.com : SABRIN AFRIN :
  13. jannatul.sifa@yahoo.com : Shahjadi Mukti :
  14. soyboliny@gmail.com : Shifat Afrin Semu : Shifat Afrin Semu
  15. suchonaislam23@gmail.com : Shuchona Islam :
  16. ummayjahan3@gmail.com : Tanzina Mim : Tazina MIm
সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১২:৫৫ পূর্বাহ্ন

নিজেকে কিভাবে সুরক্ষিত রাখবেন লকডাউনের পর

  • প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০
  • ৩২ বার দেখা হয়েছে

নিজেকে কিভাবে সুরক্ষিত রাখবেন লকডাউনের পর , যা প্রত্যেক মানুষের জানা দরকার। করোনাভাইরাস(কোভিড-১৯)যা দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে পৃথিবীর স্বাভাবিক জীবনযাত্রা অচল করে রেখেছে।করোনাভাইরাস অত্যন্ত ছোঁয়াচে ভাইরাস। তাই এর সংক্রম’ণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রায় সব দেশেই লকডাউন এর আশ্রয় নিয়েছে।যার ফলে বিশ্ব অর্থনীতি ব্যপক ক্ষতি হয়েছে।সাধারণ মানুষের জীবন জীবিকা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে তারা।

যদি প্রশ্ন করা হয় করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)কি পৃথিবী থেকে বিদায় নিবে?তবে তার উত্তর হিসেবে না ধরে নেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।করোনাভাইরাস কে সঙ্গী করেই আমাদের বাকি জীবন বাচঁতে হবে।আর লকডাউন সাধারণত ম’হামারির সময় দেওয়া হয় যাতে নতুন রোগের গতি প্রকৃতি বুঝে তাকে নিয়ন্ত্রণে রেখে মানুষ সামনের দিকে আগাতে পারে।বর্তমানে মহামারি করোনাভাইরাস এর কারনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যে লকডাউন দেওয়া হয়েছিলো তা ধীরে ধীরে  তুলে নেওয়া হচ্ছে।এখন মানুষের মনে একটাই প্রশ্ন কীভাবে এই সংক্রম’ণের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করবো।এই বিষয়টি নিয়ে গবেষকরা বিভিন্ন ধরনের গবেষণা চালাচ্ছেন।গবেষণার কাজ এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে আর সংক্রম’ণের চিতটি এখনো ঠিকভাবে পরিষ্কার না।

কিন্তু জীবিকার তাগিদে সব কিছু খুলে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও এর পেছনে রয়েছে ব্যবসায়িক মহলের চাপ।তাছাড়াও কিছু মানুষ মনে করছে এত কঠোর হয়ে লাভ নেই।এখন প্রশ্ন হলো আমরা কিভাবে নিজেকে রক্ষা করো?এর প্রথম উত্তর হবে আপনাকে অন্যজনের থেকে নিরাপদ দূরত্ব  বজায় রাখতে হবে।নিরাপদ দূরত্ব হিসেবে ১ মিটার অন্যজনের থেকে দূরে থাকতে হবে।কিন্তু ব্রিটেনসহ কিছু দেশে ২ মিটার দূরে থাকতে বলা হয়েছেন।এসব পরামর্শের একটাই উদ্দেশ্যে, আপনি যত বেশি মানুষের কাছ থেকে দূরে থাকবেন তত বেশি আপনি নিরাপদে থাকবেন।

কিন্তু এখন কথা হচ্ছে,বাংলাদেশের মত ঘনবসতিপূর্ন দেশে কিভাবে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব! এ বিষয়ে ভাইরোলজিস্ট অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেছেন,এটা খুবই কঠিন হবে। তিনি আরো বলেন,সেজন্যই মানুষকে ঘরের বাইরে যাওয়ার আগে যথেষ্ট প্রস্তুতি নিয়ে যেতে হবে।মাস্ক,চশমা, টুপি,গ্লাভস ইত্যাদি পরে বের হওয়া উচিত হবে।রোগতত্ত্ববিদ অধ্যাপক ড. জাকির হোসেন বলেন,এমনটা নয় যে আপনাকে খুব বেশি দামি মাস্ক পরতে হবে,আপনি ঘরের তৈরি কাপড়ের মাস্ক ও অনেকবার ধুয়ে ব্যবহার করতে পারেন।করোনাভাইরাস থেকে বাচঁতে নিরাপদ দূরত্ব এর পাশাপাশি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে সময়।ব্রিটিশ সরকারের হিসাব অনুযায়ী, সংক্র’মিত ব্যক্তির ৩ ফুট দূরুত্বে থাকা যতখানি ঝুঁকিপূর্ন, সংক্রমিত ব্যক্তি থেকে ২ মিটার দূরে কয়েকমিনিট অবস্থান করলেও একই পরিমান ঝুঁকি রয়েছে।গণপরিবহনে চলাচলের সময় অবশ্যই মাস্ক পরিধান করা ব্যক্তির পাশে বসতে হবে।শহরে গণপরিবহনে ঝুঁকি কমাতে সাইকেল এর লেন করা যেতে পারে।মুক্ত বাতাস এর প্রয়োজন রয়েছে এতে ভাইরাস দ্রুত বাতাসে মিশে ধ্বংস হয়ে যেতে পারে। কারো মুখোমুখি থেকে কথা বলা যাবে না ।

সোশ্যাল মিডিয়া পোষ্টটি শেয়ার করুন।

এই ক্যাটাগরির আরও পোষ্ট
© All rights reserved © 2020 bdnews99.com