1. asmaakter99987@gmail.com : Asma Akter : Asma Akter
  2. jannatulsifa9486@gmail.com : BD NEWS 99 :
  3. ohanafariah8@gmail.com : Fariah Jalal Ohana : Fariah Jalal Ohana
  4. help.geniusplug@gmail.com : Geniusplug Technology : Geniusplug Technology
  5. jannatulparash123@yahoo.com : Jannat Parash : Jannat Parash
  6. jannatulsifa236@gmail.com : jannatul sifa : jannatul sifa
  7. kabirtanzim2@gmail.com : Kabir Mahmud : Kabir Mahmud
  8. jakia0702@gmail.com : Kuashabrita Usha :
  9. nilmubdiol@gmail.com : Md Mubdiul Islam : Md Mubdiul Islam
  10. mituakter54402@gmail.com : Mehreen Mitu :
  11. engr.romansarkar@gmail.com : romanbd :
  12. afrinsabrin2019@gmail.com : SABRIN AFRIN :
  13. jannatul.sifa@yahoo.com : Shahjadi Mukti :
  14. soyboliny@gmail.com : Shifat Afrin Semu : Shifat Afrin Semu
  15. suchonaislam23@gmail.com : Shuchona Islam :
  16. ummayjahan3@gmail.com : Tanzina Mim : Tazina MIm
বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৯:২৩ পূর্বাহ্ন

মাশরাফি যা করতে ভুলেন না খেলার আগে কি সেই কাজ

  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ২৪ মে, ২০২০
  • ৩১ বার দেখা হয়েছে

মাশরাফি বিন মুর্তজা যা করতে ভোলেন না খেলার আগে জেনে নেওয়া যাক সেই খবর। ২০০১ সাল থেকে শুরু হয়েছিল মাশরাফির খেলোয়াড়ি জীবন। ওয়ানডে ফরম্যাটে এখনো খেলে যাচ্ছেন তিনি।বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের সফলতম এ অধিনায়ক দীর্ঘ প্রায় দু’দশকের এ যাত্রায় একটি কাজ করতে ভোলেননি কখনো। সেটি হলো নির্দিষ্ট তিনটি মানুষকে ফোন করা,যেকোনো ম্যাচ শুরু হবার আগে। তারা হলেন তার মা, স্ত্রী এবং মামা। কেবল যে আন্তর্জাতিক ম্যাচ এর ক্ষেত্রে এমনটা করেন তা’না। যেকোন ঘরোয়া লিগ এবং প্রস্তুতি ম্যাচের আগেও এই তিনজনকে ফোন করেন নড়াইল এক্সপ্রেস এই লিজেন্ড।

গত শনিবার রাতে তামিমের ফেসবুক লাইভে মাশরাফির এ ভিন্নধর্মী অভ্যাসটি সম্পর্কে জানা গেলো। তামিমই প্রসঙ্গটি তুলেছিল। তামিম বলছিলেন, “ভাই মা আর স্ত্রীর ব্যাপার টা বুঝতে পারি কিন্তু মামার বিষয়টা একটু আলাদা লাগে। এর কোন বিষেষ কারণ আছে কি?”তামিমকে শুধরে দিয়ে মাশরাফি উত্তর করেন এভাবে, ‘আমি একটু বলি, ম্যাচের আগে আমি তিনজনকে ফোন করি। বিয়ের পর থেকে আমি সবসময় আমার স্ত্রী কে ফোন করি। মায়ের ব্যাপার টা তোরা সবাই বুঝতে পারিস আমি তা আমি জানি।

মাশরাফি বিন মুর্তজা আরোও বলেন, ‘মামার ব্যাপার টা হচ্ছে যে সে ছোটবেলা থেকেই আমি মামার কাছে বড় হয়েছি। মনের একটা সাহস আছে না? তো তাদের সঙ্গে কথা বললে আমার ভেতর থেকে একটা শক্তি আসে। এই তিনজনের সঙ্গে আমি তাই সবসময় ফোনে কথা বলি। আরেকজনের সঙ্গেও বলি, সে নাম এখানে আর বললাম না।’বাংলাদেশ দলের ‘রাঙ্গাবউ’ মুশফিক ,শনিবার রাতে তামিম ইকবালের ফেসবুক লাইভে মুশফিকুর রহিমের অন্যতম একটি গুন প্রকাশ পায়। বাংলাদেশ ক্রিকেট দল লম্বা সময়ের জন্য দেশেত বাইরে কোথাও গেলে সেখানে শুধু খেলা নিয়েই কথা হয় না। দুটি ম্যাচের মাঝে কিংবা পুরো সফরে দুই-একদিন সময় পেলে সেটি নিজেদের মতো করে উপভোগ করেন তারা। সবসময় হোটেলের খাবার খেতে খেতে তারা যখন বিরক্ত হয়ে যান, তখন নিজেরাই রান্না করে খান। এটি মাশরাফি, তামিম,মুশফিকদের মজার একটি রীতি হয়ে গিয়েছে।

সেই মজার রীতিতে পারদর্শী বলে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমকে ‘রাঙ্গাবউ হিসেবে ধরেন দলের বাকি খেলোয়াড়রা। সেদিন তামিম ইকবালের লাইভে ছিলেন,মাশরাফি বিন মর্তুজা, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং মুশফিকুর রহিম।তামিম তার(মুশফিক) গুনাবলি প্রকাশ করার পর মুশফিক জবাব দেবার আগেই পাশ থেকে মাশরাফির ছোট্ট কথা, বাংলাদেশ দলের বউ।রাঙাবউ রাঙ্গাবউ। (সবাই একসাথে হাসি)সবশেষে শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে এভাবে রান্না করে খেয়েছিলেন তারা। সেদিন তারা খিচুরি রান্না করেছিল। সেও সফরে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের করা ডিম পোচ আর কখনো খেতে চান না তামিম।

সোশ্যাল মিডিয়া পোষ্টটি শেয়ার করুন।

এই ক্যাটাগরির আরও পোষ্ট
© All rights reserved © 2020 bdnews99.com