1. asmaakter99987@gmail.com : Asma Akter : Asma Akter
  2. jannatulsifa9486@gmail.com : BD NEWS 99 :
  3. ohanafariah8@gmail.com : Fariah Jalal Ohana : Fariah Jalal Ohana
  4. help.geniusplug@gmail.com : Geniusplug Technology : Geniusplug Technology
  5. jannatulparash123@yahoo.com : Jannat Parash : Jannat Parash
  6. jannatulsifa236@gmail.com : jannatul sifa : jannatul sifa
  7. kabirtanzim2@gmail.com : Kabir Mahmud : Kabir Mahmud
  8. jakia0702@gmail.com : Kuashabrita Usha :
  9. nilmubdiol@gmail.com : Md Mubdiul Islam : Md Mubdiul Islam
  10. mituakter54402@gmail.com : Mehreen Mitu :
  11. engr.romansarkar@gmail.com : romanbd :
  12. afrinsabrin2019@gmail.com : SABRIN AFRIN :
  13. jannatul.sifa@yahoo.com : Shahjadi Mukti :
  14. soyboliny@gmail.com : Shifat Afrin Semu : Shifat Afrin Semu
  15. suchonaislam23@gmail.com : Shuchona Islam :
  16. ummayjahan3@gmail.com : Tanzina Mim : Tazina MIm
বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন

অ্যান্ড্রয়েড ফোন হ্যাং হওয়ার কারণ এবং সমস্যার সমাধান জেনে নিন

  • প্রকাশিতঃ সোমবার, ১৫ জুন, ২০২০
  • ৩৫ বার দেখা হয়েছে

অ্যান্ড্রয়েড ফোন হ্যাং হওয়ার কারণ এবং এই সমস্যার সমাধান কীভাবে করতে হবে তা জেনে নিন। আধুনিক বিশ্বে অ্যান্ড্রয়েড ফোন বা স্মার্টফোন এখন সবার হাতের নাগালে।যুগের সাথে তাল মিলিয়ে কম বেশি সবাই অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করে থাকে। তবে স্মার্টফোন ব্যবহারকারী মাঝে মাঝে কিছু সমস্যার সম্মুখীনও হন।তার মধ্যে একটি হলো  ব্যবহারকৃত ফোনটি হ্যাং করা।অ্যান্ড্রয়েড ফোন বা স্মার্টফোন হ্যাং হওয়ার কারণ এবং এই সমস্যার সমাধান নিয়ে নিচে আলোচনা করা হলো।

অ্যান্ড্রয়েড হ্যাং হওয়ার কারণসমূহঃ১.মোবাইল ফোন হ্যাং হওয়ার প্রধান কারণ হলো মোবাইলে স্পেস কম থাকা।ব্যবহারকারীর প্রয়োজনের তুলনায় মেমোরি কম হলেই মোবাইল হ্যাং হওয়ার সমস্যা দেখা দেয়।২.মোবাইলে যে পরিমাণ মেমোরি আছে তার তুলনায় ভারি অ্যাপ্লিকেশন বা গেম ইনষ্টল করলে মোবাইল হ্যাং করে।৩.মেমোরি কার্ড (Memory card/External Memory) এর পরিবর্তে যদি ফোন মেমোরিতে (Internal/Rom) বেশি পরিমাণে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন বা অ্যাপ বেশি ইনষ্টল করা হয় তাহলে রোম এর ঘাটতি দেখা দেয়।এর ফলে ফোন পূর্বের তুলনায় স্লো কাজ করে বা হ্যাং হয়ে যায়।৪.মোবাইলের cookies,caches,log file যদি ঠিকমতো পরিস্কার রাখা না হয় তাহলে মেমোরিতে জ্যাম করে মোবাইলের স্পিড কমিয়ে দেয়।এতে মোবাইল হ্যাং করে থাকে।

অ্যান্ড্রয়েড ফোন হ্যাং হওয়া সমস্যার সমাধান ১.প্রয়োজনের তুলনায় অধিক পরিমাণে অ্যাপ্লিকেশন ইনষ্টল করা থেকে বিরত থাকতে হবে।যদি পূর্বেই ইনষ্টল করা থাকে তাহলে সেগুলো ডিলিট করে দিতে হবে।২.ফোনের cached data পরিস্কার করতে হবে।নয়ত এটি ফোনের মেমোরিকে জ্যাম করে ফোনের স্পিড কমিয়ে দেয়।তাই এটি সবসময় পরিস্কার রাখতে হবে।৩.অব্যবহৃত কোনো অ্যাপ ফোনে রাখা যাবে না।

কারণ এগুলো ফোনের নির্ধারিত স্পেসের অনেকটা দখল করে নেয়।এজন্য অব্যবহৃত কিছু ফোনে রাখা যাবে না।৪.ফোনে যেসব অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করা হবে সেগুলোর লাইট ভার্সন ব্যবহার করতে হবে।যেমন:ফেসবুক,টুইটার,মেসেঞ্জার অ্যাপসের লাইট ভার্সন ব্যবহার করতে হবে।এতে ফোনের স্পিড বৃদ্ধি পাবে।ফোন হ্যাং করবে না।৫.মোবাইল ফোন সবসময় আপডেট করতে হবে।এতে পুরাতন অ্যাপসের পুরাতন সিস্টেম বন্ধ হয়ে নতুন সিস্টেম চালু হবে।যা ফোনকে দ্রুতগতি সম্পন্ন করতে সাহায্য করে।৬.ফোনে ব্যবহৃত মেমোরি কার্ড ফরম্যাট করতে হবে।

এটি ফোন হ্যাং করার অনেক বড় একটি কারণ।ফোনের মেমোরি কখনো ক্র্যাশ হয়ে গেলে সেটির জন্য এক্সটারনাল মেমোরি দায়ী হয়ে থাকে।তখন দেখা যায় আমরা মেমোরিটি ফরম্যাট না করেই অন্য ফোনে সংযুক্ত করে থাকি।যা পরবর্তীতে ফোন হ্যাং বা অন্যান্য সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।এজন্য মেমোরি ফরম্যাট করে ফোনে সংযুক্ত করতে হবে।৭.প্লেস্টোর থেকে অ্যাপ ইনষ্টল করার সময় অ্যাপের ডিজাইন ও এটি ব্যবহারে কি কি সুবিধা আছে তা জেনে নিতে হবে।কারণ প্লেস্টোরে অসংখ্য অ্যাপ আছে যা সবার সুবিধার কথা বিবেচনা করে তৈরি করা হয়নি।এজন্য অ্যাপ ইনষ্টলের সময় এ বিষয়টি খেয়ালে রাখতে হবে।৮.ফোনকে দ্রুতগতি সম্পন্ন করতে ও হ্যাং হওয়ার সমস্যা রোধে ক্লাউড স্টোরেজ ব্যবহার করতে হবে।এই স্টোরেজটি ২০১৭ সাল থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে।এর অনেক সুবিধাও রয়েছে।এই স্টোরেজ ব্যবহারের ফলে আপনার তথ্য বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে নিয়ন্ত্রণ করার সুবিধা দেয় এবং ফোনের মূল্যবান মেমোরিও রক্ষা করে।

সোশ্যাল মিডিয়া পোষ্টটি শেয়ার করুন।

এই ক্যাটাগরির আরও পোষ্ট
© All rights reserved © 2020 bdnews99.com